কফির এই ফেসিয়াল টি ১ বার ব্যবহার করে দেখুন, ত্বক এত বেশি ফর্সা ও গ্লোয়িং হবে যে ভাবতেই পারবেন না

সুপ্রিয় বন্ধুরা, ফেসিয়াল এই শব্দটির সাথে পরিচিত হন নি এমন মানুষ কিন্তু পাওয়া অনেক দুষ্কর হয়ে পড়ে। কারণ কমবেশি সব মানুষই বর্তমানে রূপচর্চা নিয়ে সচেতন। আর যারা রূপ বিষয়ে এত বেশি সচেতন তাদের কাছে ফেসিয়াল শব্দটি তো একেবারে চেনা পরিচিত একটি শব্দ।  কিন্তু আপনারা জানেন ফেসিয়াল মানে কি ??? ফেসিয়াল মানে কিন্তু ত্বককে ফর্সা করা নয়, ফেসিয়াল মানে হল ত্বককে ভেতর থেকে পরিষ্কার করা। বিভিন্ন ধরনের ধুলো ময়লা বের করে ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে দেওয়া। আর মৃতকোষ থাকলে তা তুলে ফেলা। এর মধ্য দিয়ে ইনস্ট্যান্ট একটি গ্লো পাওয়া গেলেও আমাদের ত্বক ফর্সা হয় না।কিন্তু প্রকৃতি থেকে সংগৃহীত বিভিন্ন উপকরণ দিয়ে তৈরিকৃত ফেসিয়াল আমরা ঘরে বসে করতে পারি এ ধরনের ফেসিয়াল ব্যবহারের আমাদের ত্বক কিন্তু ভেতর থেকে ফর্সা হতে শুরু করে এর পাশাপাশি ত্বক থেকে ধুলো ময়লা বের হয়ে যায়। সে ফলাফলটি পাওয়ার জন্য আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি কফি পাউডার এর চমৎকার একটি ফেসিয়াল।

কফির ফেসিয়ালের উপকারিতাঃ

  • কফির এই ফেসিয়াল করার মধ্য দিয়ে আপনার ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার হবে।
  • তার পাশাপাশি আপনার মৃতকোষগুলো উঠে যাবে। এবং ত্বকে রক্ত সঞ্চালন অনেক বেড়ে গিয়ে ত্বককে প্রাণবন্ত করে দিবে।
  • মাত্র ১ বার ব্যবহার করলে আপনার ত্বক হয়ে উটবে মারাত্বক জেল্লাদায়ক।

তাহলে বন্ধুরা, আর দেরি না করে চলুন জেনে নেওয়া যাক কফি পাউডার এর ফেসিয়াল কিভাবে করবেনঃ

এক মুহূর্তে ত্বকে গ্লোয়িং ভাব আনতে কফি পাওডারের ফেসিয়াল টি যেভাবে করবেনঃ

  • ত্বক পরিষ্কারঃ

প্রথম যে ধাপটি আপনাকে অনুসরণ করতে হবে তা হলো ত্বক পরিষ্কার করা। এটি দিয়ে আপনাকে শুরু করতে হবে।

  • প্রথমে ভাল করে আপনাকে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে ঠান্ডা জল দিয়ে।
  • এরপর একটি পাত্রে ২ টেবিল চামচ কফি পাউডার নিয়ে তার সাথে………

১ টেবিল চামচ চিনি,

২ টেবিল চামচ কাঁচা হলুদ বাটা,

ভালোমতো মিক্স করে নিতে হবে। ১ টি লেবুকে দুই টুকরো করে আলাদা আলাদা ভাবে রাখতে হবে। তার থেকে একটি লেবুর টোকরা আমরা ওই মিশ্রণের কিছু পরিমাণ লেবুতে উঠিয়ে নিয়ে আমরা তা মুখে লাগাবো।

  • ৫ মিনিটের জন্য মুখে রেখে দিব। কোন ধরনের স্ক্রাবিং ছাড়াই ৫ মিনিট সময় পরে আমাদেরকে লেবু দিয়ে স্ক্রাবিং করে নিতে হবে। অবশ্যই সেটা সারকুলার মোশনে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে।
  • তাহলে পরিষ্কার এর সাথে সাথে স্ক্রাবিং বিষয়টিও আমাদের এই ধাপে চলে আসে। বন্ধুরা এই স্ক্রাবিং এর মাধ্যমে আমাদের ত্বক যেমন পরিষ্কার হবে সাথে সাথে অনেক নরম হয়ে যাবে।
  • স্ট্রিমিং বা গরম পানির ভাপ নেওয়াঃ

২য় ধাপে আমাদের যে কাজটি করতে হবে সেটি হল স্ট্রিমিং বা গরম পানির ভাপ নেওয়া। এর সাথে আরেকটি বিষয় আমাদের এড করতে হবে সেটি আমরা এখন আপনাদের সাথে আলোচনা করব।

  • একটি পাত্রে এক চামচ পরিমাণ কফি পাউডার আধা লিটার পানিতে মিশাতে হবে। তার সাথে দুটি এলাচ দারুচিনি দিয়ে দিতে হবে।
  • বন্ধুরা ১০ মিনিট পর্যন্ত পানিতে সিদ্ধ করে নামিয়ে নিয়ে একটি তোয়ালে মাথায় জড়িয়ে দিয়ে এই গরম পানির ভাপ টি মুখে নিতে হবে।
  • ৫ মিনিট মতো ভাপ নিয়ে শেষ করতে হবে।
  • এটার মাধ্যমে আমাদের ত্বক কোমল হবে। সেটা আপনার হাত দিলে বুঝতে পারবেন।
  • স্ট্রিমিং করার পরে আমাদের উচিত হবে একটি ডিম নিয়ে তার সাথে দুই টেবিল-চামচ কফি পাউডার মিক্স করে মুখে লাগিয়ে নেওয়া।
  • এটি ১০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখলে চমৎকার একটি ফেইস মাক্স এর মত তৈরী হয়ে যাবে।
  • ১০মিনিট রেখে হালকা উষ্ণ পানি দিয়ে আস্তে আস্তে ধুয়ে ফেলতে হবে। 
  • ফেসিয়াল প্যাকঃ
  • এখন আমাদেরকে যে কাজটি করতে হবে তা হল একটি বড় বাটিতে ২ টেবিল চামচ কফি পাউডার দিতে হবে।
  • সাথে ১ টেবিল-চামচ এলোভেরা জেল,

১ টেবিল-চামচ কাঁচা হলুদ বাটা,

১টেবিল চামচ পাকা পেঁপের পেস্ট,

১টেবিল চামচ বাটার,

১টেবিল চামচ মিষ্টি কুমড়ার পেস্ট,

২ টেবিল চামচ বেসন,

যেভাবে বানাবেনঃ

  • সব উপকরণ একসাথে করে ২ টেবিল চামচ মধু, পরিমাণমতো লেবুর রস এবং ৩ টেবিল চামচ গরুর দুধ মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করে ফেলতে হবে।
  • এটি তৈরি হয়ে গেলে তা আমাদের মুখে লাগিয়ে নিয়ে অন্ততপক্ষে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে।
  • ২০ মিনিট পরে হালকা উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলবো, এরপরে এর মধ্য দিয়ে আমাদের ফেসিয়ালের কাজ পুরোপুরি শেষ হয়ে গেল।

নোটঃ ফেসিয়াল করার ৭২ ঘন্টার মধ্যে কোন ধরনের মেকআপ বা অন্য কোনো প্রাকৃতিক উপকরণ মুখে নেওয়া যাবে না। এবং ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রোদে বের হওয়া যাবেনা। বের হতে হলে অবশ্যই ছাতা নিয়ে বের হতে হবে।

তাহলে বন্ধুরা, আমরা এখন জানতে পারলাম কিভাবে এবং কত সহজে চমৎকার ভাবে কফি পাউডার এর ফেসিয়াল করা যায় যা মাত্র ১ বার ব্যবহার করে আপনার ত্বক এত ফর্সা ও আকর্ষণীয় হয়ে যাবে ভাবতেই পারবেন না। নিয়মিতভাবে ফেসিয়াল করার চেষ্টা করবেন অন্ততপক্ষে সপ্তাহে ২ বার হলেও এবং আপনারা বিশ্বাস করবেন না কত সুন্দর এবং উজ্জ্বল আপনাদের ত্বক  হয়ে যাবে শুধুমাত্র ঘরে বসে ফেসিয়াল করার মধ্য দিয়ে। ধন্যবাদ।