ত্বকের জৌলুস ফিরিয়ে ত্বক ফর্সা করতে আলুর রসকে ব্যবহার করুন 

এতোদিন শুনতাম আলু শুধু খেতে মজা। জ্বী হ্যাঁ খেতে যেমন মজা তেমনি ত্বকে জৌলুস দিতে এই আলুর রস দারুণ কাজ করে। আর হ্যাঁ অনেকেই বলে থাকেন আলু হলো রান্নার কাজে সহজ তরকারি। কেননা শাকসব্জি কিংবা আমিষ জাতীয় যে ধরণের খাবার হোক না কেনো আলু অতি সহজেই মিশে যায়। ঠিক তেমনি ত্বকের জৌলুসতা বাড়াতে এই আলু ও খুব সহযে ত্বকের সাথে মিশিয়ে ত্বকের জৌলুসতা বাড়ায়। ঘরোয়া উপাদানে যদি ত্বকের যত্ন নেয়ার কথা বলি তাহোলে বলব আলু হলো আমাদের হাতের কাছে সবচেয়ে সহজ উপাদান। যার মাধ্যমে ত্বকের যত্ন নিতে পারব। তাই আজ আমরা আলু নিয়ে আরো বিস্তারিত জানব আলুর রসের ব্যবহারে কীভাবে ত্বকে জৌলুসতা ফিরে আসে ও ত্বক উজ্জ্বল ও ফর্সা হয় ।

আলু নিয়ে জরুরি কিছু কথা

আলুতে প্রচুর পরিমাণে প্রোট্রিন, ভিটামিন এবং মিনারেল থাকায় নারীদের ত্বকের যত্নে এবং ত্বকের জৌলুসতা বাড়াতে এই আলু হতে পারে অপরিহার্য উপাদান। ত্বকের ব্রণ থেকে শুরু করে ব্ল্যাক হেডস পর্যন্ত সবকিছু দূর হবে এই আলু দিয়ে। ভিটামিন সি, ভিটামিন বি-এর অন্যতম উৎস হলো আলু। ভিটামিন সি ত্বকের কোলাজেন বৃদ্ধি করে যা তাপ, সূর্যের আলোর কারণে সৃষ্টি হওয়া কালো দাগ দূর করে দেয়।  ভিটামিন বি ত্বকের কোষ ট্রান্সফরমেশন করে ত্বকের কালো দাগ এবং পিম্পলের দাগ দূর করে থাকে। এই কালো দাগ দূর হলে তবেই ত্বকের জৌলুসতা বৃদ্ধি পায়।

আসুন জেনে নেই ত্বকের জৌলুসতা ফিরিয়ে আনতে আলুর রসের ব্যবহার

খাওয়া দাওয়া কিংবা অন্যান্য কাজে আলু ব্যবহার হয়না এরকম বাসা খুব কম পাওয়া যাবে। আর যেখানে রয়েছে নিয়মিত রূপচর্চা করার মা চাচী খালা তারা তো আরো বেশি করে এই আলু ব্যবহার করেন। হয়তো অনেকে জানেন অনেকে জানেন না। তাই আজ আমরা আলুর রস ব্যবহার করে ত্বকের জৌলুসতা বাড়ানোর জন্যে সঠিকভাবে ৩টা ফেস প্যাক বানাবো যেখানে মূল উপাদান হিসেবে থাকবে আলুর রস। চলুন জেনে নেই ত্বলের জৌলুসতা বাড়াতে আলুর রসের সহজ ব্যবহার–

ত্বকের কালো দাগ দূর করতে আলুর রস

  • দিনের অনেক টা সময় বাইরে চলাফেরা করতে হয় এতে করে মুখে অনেক রোদে পোড়া দাগের সৃষ্টি হয়। এ দাগ দূর করতে আলুর রস বিরাট ভূমিকা পালন করে।

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

  1. একটি আলু

প্রথমে একটি আলুকে খোসাসহ ভালো করে পানি দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করুন। এবার আলুটি পাতলা পাতলা করে কেটে নিন। এবার একটি করে আলুর টুকরো নিন এবং তা ত্বকে ম্যাসাজ করতে থাকুন। ত্বকের যেসব স্থানে কালো দাগ রয়েছে সেই স্থানগুলোতে আলু ম্যাসাজ করুন। এইভাবে ১৫ থেকে ২০ মিনিট শুকিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর ঠাণ্ডা বা সাধারণ পানি দিয়ে ভালোভাবে মুখ ধুয়ে ফেলুন। দিনে ২ থেকে ৩ বার এটি ব্যবহার করুন। এক সপ্তাহের মধ্যে দেখতে পাবেন ত্বকের কালো দাগ সব দূর হয়ে গেছে আর ত্বকে হারিয়ে যাওয়া জৌলুসতা ফিরে এসেছে। ত্বকের জৌলুসতা ফিরিয়ে আনতে নিয়মিত এইভাবে ত্বকের যত্ন নিন

ত্বক টানটান ও ময়লা দাগ দূর করতে আলুর রস

  • আমরা সকলে দেখি আমাদের কাছের মানুষ কিংবা বন্ধুবান্ধবরা আমাদের গাল টানে কিন্তু ত্বক যখন মলিন তখন কতোই না মন্তব্য শুনে থাকি। তাই আমরা সকলে চেষ্টা করি আমাদের ত্বক টানটান হোক। কিন্তু বাইরের ধূলাবালি আমাদের ত্বকের ময়লার আস্তরণ ফেলে। যার ফলে ত্বকের নমনীয়তা,কোমলতা,জৌলুসতা সব হারিয়ে যায়।

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

  1. একটি আলু
  2. একটি টমেটো
  3. এক টেবিল চামচ মধু

প্রথমে একটি টমেটো আর একটি আলুকে একসাথে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। এবার এই দুটো উপাদানকে ব্লেন্ড করে একটি পেস্ট তৈরি করে নিন।এবার এতে মধু মিশিয়ে নিন।এরপর প্যাকটি ভালোভাবে আপনার মুখে লাগান এবং শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকানোর পর পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে ত্বকের ভেতর থেকে ময়লা দূর হবে। মুখে প্যাক লাগানোর পর শুকিয়ে গেলে মুখ ভালোভাবে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে ২ থেকে ৩ বার হলেও এই প্যাক ব্যবহার করুন। দেখবেন ত্বক হবে টানটান আর ত্বকে ময়লা দূর করে ত্বলে জৌলুসতা ফিরিয়ে দেবে।

নোটঃ এছাড়া আপনি চাইলে আলুর রসে সাথে লেবুর রস আর মধু মিশিয়ে ও ব্যবহার করতে পারেন। এতে ত্বকের ময়লা দূর হবে।

ব্রণ ও ব্রণের দাগ দূর করতে আলুর রস

  • মুখে একটা ব্রণ দেখা দিলে তা নিয়ে আমাদের দুশ্চিন্তার শেষ নাই। একটা ব্রণ থেকে আমরা চিন্তা চিন্তায় আরো ব্রণের সৃষ্টি করে ফেলি। এই ব্রণ নিয়ে মেয়েদের বেশি চিন্তা কিন্তু তারা ত্বকের যত্নে একদম অসচেতন। এক্ষেত্রে সচেতনতা বাড়াতে আলুর রস আপনাকে সাহায্য করবে।

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

  1. একটি আলু
  2. একটি পাতলা কাপড়

প্রথমে ১ টি আলু আর ১ টি পাতলা কাপড় নিন। আলু পানিতে ধুয়ে পরিষ্কার করে চামড়া ছিলে নিন। এরপর একটি পাত্রে আলু কুচি করুন। কুচি করা আলু একটি পাতলা কাপড়ে নিয়ে চিপড়িয়ে আলুর রস বের করুন।এবার এই আলুর রসটি ১০-১৫ মিনিটের জন্য ফ্রিজে রেখে দিন।এবার আলুর রসে ভিতরে একটি তুলার বল ভিজিয়ে নিন। এরপর ত্বকের যে স্থানগুলোতে ব্রণ বা ব্রণের দাগ রয়েছে সেই স্থানগুলোতে ম্যাসাজ করুন।এরপর ঠাণ্ডা বা সাধারণ পানি দিয়ে ভালোভাবে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এইভাবে আপনি প্রতিদিন অথবা দিনে দুইবার করে ব্যবহার করতে পারেন। দেখবেন দুই সপ্তাহের মধ্যে ব্রণ এবং ব্রণের দাগ দূর হয়ে যাবে আর ত্বকে জৌলুসতা বাড়াবে।

যেহেতু আলু নিয়ে এখন সহজ উপায় জেনে নিলাম তাই এখন থেকে সব আলুকে আর তরকারি বানিয়ে খেয়ে ফেলবোনা বরং কিছু আলু রূপচর্চার জন্যেও রেখে দিন